সিকিম ট্যুর প্যাকেজ

বিদেশ ভ্রমনে চমৎকার অভিজ্ঞতা পেতে সবচেয়ে সহায়ক হচ্ছে সঠিক ট্যুর প্ল্যান এবং সেখানকার লোকাল সাপোর্ট। আর এই দুটি ক্ষেত্রেই নিজেদেরকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে দেশের সবচেয়ে ফিমেইল ফ্রেন্ডলি ট্যুর অর্গানাইজার  গ্রিন বেল্ট। ধার করা ট্যুর প্ল্যান নয় বরং নিজস্ব অভিজ্ঞতা আর দক্ষতার সমন্বয়ে আমাদের টিম প্রস্তুত আপনাকে আথিতেয়তার পুরোটুকু দিতে। দেশে অনেকগুলো প্রতিষ্ঠান সিকিম ট্যুর প্যাকেজ অফার করছে।  Green Belt এর বিশেষত্ব হলো- গ্রিন বেল্ট মূলত কাজ করে ফ্যামিলি ট্যুর নিয়ে। নারীদের সুবিধা অসুবিধা বিবেচনায় রেখেই আমরা ট্যুর ডিজাইন করে থাকি। কর্পোরেট ফ্যামিলি ট্যুরের ক্ষেত্রেও দেশের শীর্ষস্থানীয় মাল্টিন্যাশনাল হাউজগুলো ভরসা রেখেছে আমাদের উপর।

গন্তব্য: সিকিম ভ্রমণ!

❑ যাত্রার তারিখ

ট্যুর ১: ১৬ নভেম্বর ২০২২
ট্যুর ২: ৩০ নভেম্বর ২০২২
ট্যুর ৩: ১৪ ডিসেম্বর ২০২২
ট্যুর ৪: ২০ ডিসেম্বর ২০২২

**উল্লেখ্য সিকিমে বরফ থাকে নভেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত। তাই নভেম্বরের আগে আমরা ট্যুর রাখিনি।

**নূন্যতম ৪ জন হলে যেকোন দিন প্রাইভেট ট্যুর এরেঞ্জ করা যাবে।

❑ ভ্রমণ খরচ
জনপ্রতি  ২০৫০০ টাকা (শেয়ারিং/ফ্যামিলি রুম)
কাপল প্যাকেজ: ৪৫০০০ টাকা (প্রতি কাপল)

❑ ভ্রমণের স্থান সমুহ
⦿ সিকিম ⦿ গ্যাংটক ⦿ লাচুং ⦿ ইয়ামথাং ভ্যালি ⦿ নামনাং ভিউ পয়েন্ট ⦿ তাশি ভিউ পয়েন্ট ⦿ ইঞ্চে মনেস্ট্রি ⦿ টিবেটলজি ⦿ বানজাগ্রি ওয়াটারফল ⦿ সেভেন সিস্টার্স ওয়াটারফল ⦿ নাগা ওয়াটারফল

সিকিম ভ্রমণের সম্ভাব্য বর্ণনা

১ম দিন রাতে রওনা দিয়ে ২য় দিন ভোরে বুড়িমারি বর্ডারে পৌঁছাবো। সকাল ৯টায় ইমিগ্রেশন কাস্টমস ওপেন হলে, সব ফর্মালিটি শেষ করে শিলিগুড়ি হয়ে রওয়ানা করবো সিকিমের উদ্দেশ্যে। সন্ধ্যার আগেই গ্যাংটকে হোটেল চেক ইন।

তৃতীয় দিন সকালের নাস্তা শেষে রিজার্ভ জিপে সাইট সিয়িং এর উদ্দেশ্যে বের হবো। এদিন আমরা গ্যাংটক ও এর চারপাশের দর্শনীয় স্থানগুলো ঘুরে দেখবো। চতুর্থ দিন ব্রেকফাস্টের পর হোটেল থেকে চেকআউট করে আমরা রওনা করবো সিকিমের মূল আকর্ষণ লাচুং এর উদ্দেশ্যে। পথে গাড়ি থামিয়ে আমরা দেখে নিবো বরফ জমে যাওয়া একাধিক ঝর্ণা। বিকেলের মধ্যে লাচুংয়ে হোটেলে চেক-ইন। দিনের বাকিটা সময় হোটেলের আশেপাশে বরফের রাজ্যে নিজেদের মতো সময় কাটাবো।

পঞ্চম দিন ব্রেকফাস্টের পর চলে যাবো ইয়ামথাং ভ্যালি ও জিরো পয়েন্টের উদ্দেশ্যে। সেখানে বরফের রাজ্যে দুই ঘন্টা কাটিয়ে আমরা আবার লাচুং ফিরে আসবো। এরপর লাঞ্চ শেষে গ্যাংটকের উদ্দেশ্যে রওনা করবো। রাতে গ্যাংটকে অবস্থান। ষষ্ঠ দিন ব্রেকফাস্টের পর শিলিগুড়ির উদ্দেশ্যে রওনা করবো। শিলিগুড়ি হয়ে বিকেলের মধ্যে বাংলাদেশ বর্ডার চলে আসবো। এরপর বর্ডার ক্রস করে সন্ধ্যার বাসে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা। পরদিন ভোর ৫টায় ঢাকায় থাকবো।

কনফার্ম করার ডেডলাইন: যাত্রার তারিখের কমপক্ষে ১২ দিন আগে বুকিং কনফার্ম করতে হবে।

(বি.দ্রঃ শুধু মাত্র ভিসা থাকলে ডেড লাইনে কনফার্ম করা যাবে। ভিসা না থাকলে পর্যাপ্ত সময় হাতে রেখে যোগাযোগ করতে হবে।)

❑ কনফার্ম করার জন্য ডেডলাইনের মধ্যে প্রতিজন ৭০০০ টাকা করে কনফার্মেশন মানি জমা দিতে হবে।

❑ চাইল্ড পলিসিঃ ০ থেকে ৩ বছরের শিশুদের জন্য ফ্রি এবং ৩+ থেকে ৮ বছরের শিশুদের জন্য আলোচনা সাপেক্ষে চার্জ প্রযোজ্য হবে।

সিকিম ট্যুর প্যাকেজে যা যা থাকছে

⦿ ঢাকা -বুড়িমারী- ঢাকা বাস টিকিট, জিপ সহ সকল যাতায়াত খরচ।
⦿ ৪ রাত হোটেলে থাকা।
⦿ ভারত পৌঁছানোর পর প্রথমদিন রাতের খাবার থেকে শুরু করে আসার দিন দুপুরের খাবার পর্যন্ত প্রতিদিন ৩ বেলা খাবার।
⦿ সকল প্রকার হোটেল ট্যাক্স ও পার্কিং চার্জ ।

❑ যা থাকছেনা
⦿ ঢাকা থেকে বুড়িমারি যাওয়া আসার পথে বাসের যাত্রা বিরতিতে খাবার।
⦿ ট্রাভেল ট্যাক্স
⦿ বর্ডার স্পিড মানি

কনফার্ম করার আগে যে ব্যাপার গুলো অবশ্যই বিবেচনা করতে হবে

⦿ ভিসায় পোর্ট চ্যাংড়াবান্দা হলে এই ট্যুর এ জয়েন করতে পারবেন।

⦿ যদি ভিসায় চ্যাংড়াবান্ধা পোর্ট না থাকে তবে খুব সহজেই এটি এড করে নিতে পারবেন।

⦿ যদি ভিসা না থাকে তবে ভিসা করানো অথবা পোর্ট এডের ক্ষেত্রে গ্রিনবেল্ট সব রকম সহযোগিতা করবে।

⦿ হোটেলে এক রুমে ৪ জন করে থাকা। রুমে দুইটা করে বড় বেড থাকবে। ফ্যামিলি না হলে অবশ্যই মেয়েদের থাকার রুম আলাদা থাকবে। কাপলদের জন্য কাপল রুম থাকবে।

⦿ সব রুমে এটাচ বাথ ও গিজার থাকবে।

⦿ শুধুমাত্র ফ্যামিলি ট্যুরিজম নিয়ে কাজ করা গ্রিন বেল্ট বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান।

⦿ কোন হিডেন চার্জ নেই।

⦿ বাসের আসন বণ্টনের ক্ষেত্রে সিট আগে বুকিং দিলে আগে পাবেন ভিত্তিতে দেয়া হবে। **

⦿ আমাদের বিভিন্ন ট্যুর শেষে ট্রাভেলারদের ফিডব্যাক জানতে ও ট্যুরের ছবি দেখতে জয়েন করতে পারেন উন্মুক্ত ট্রাভেল আড্ডার গ্রুপ Green Belt The Travelers‘এ।

আমাদের অভিজ্ঞতা : ট্যুরিজম ব্র্যান্ড হিসেবে ২০১৬ সালে গ্রিন বেল্ট যাত্রা শুরু করে। তারপর গত ৬ বছরে গ্রিন বেল্ট সাফল্যের সাথে পরিচালনা করেছে ১০০০ এরও বেশি ট্যুর। দেশের বাইরের ট্যুরগুলোর মধ্যে ভারত ও ভূটানে ট্যুর পরিচালনায় গ্রিন বেল্ট এর দক্ষতা সর্বাধিক। ভারতে সিকিম ট্যুর প্যাকেজ বাদেও দার্জিলিং, মেঘালয় ও কাশ্মীর ট্যুর রয়েছে আমাদের। দেশের ভিতরে রয়েছে সাজেক ভ্যালি, কক্সবাজার, সেইন্টমার্টিন, বান্দরবান, রাঙ্গামাটি, সুন্দরবন, সিলেট সহ অনেকগুলো ডেস্টিনেশন। প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে বাংলাদেশ সচিবালয়ের বিভিন্ন মাননীয় সচিব থেকে শুরু করে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন, টেকনোভিস্তা, ড্রাগ ইন্টারন্যাশনাল, কোকাকোলা (আব্দুল মোনেম লিঃ), রক্সি পেইন্ট, ডাচ বাংলা, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, সিটি ব্যাংক সহ ৮ টি ব্যাংকের বিভিন্ন ব্রাঞ্চ, পঙ্গু হাসপাতালের ডাক্তারগন, ঢাকা মেডিকেল, আসগর আলী মেডিক্যাল সহ বিভিন্ন মেডিকেলের ডাক্তারগণ আমাদের কর্পোরেট ট্যুর সার্ভিস নিয়েছেন। রেগুলার ট্যুর বাদেও নূন্যতম ৫ জন হলে যেকোনোদিন আমরা কাস্টমাইজ ট্যুর এরেঞ্জ করে থাকি। আপনার প্রতিষ্ঠানের কর্পোরেট ট্যুর আয়োজনের জন্য ভরসা করতে পারেন আমাদের দক্ষ টিমের উপর! আপনার স্বপ্নগুলো স্মৃতি হোক!

বুকিং মানি জমা দেওয়ার পদ্ধতি

** সরাসরি অফিসে এসে বুকিং মানি জমা দেয়া যাবে।
(শাহ-আলী প্লাজা, ১৪তম তলা, মিরপুর ১০ নাম্বার গোল চত্ত্বর।)

** বিকাশ ও ডাচ বাংলা ব্যাংকের রকেট করা যাবে।

** ব্যাংক ডিপোজিট করে বুকিং করা যাবে।

**যোগাযোগ :
0186 9649 817
0188 4710 723
0188 6363 232

ভারতে গ্রিন বেল্ট এর অন্যান্য ট্যুর

দার্জিলিং ট্যুর প্যাকেজ
মেঘালয় ট্যুর প্যাকেজ
কাশ্মীর ট্যুর প্যাকেজ