কাশ্মীর ভ্রমণ

কাশ্মীর ভ্রমণ

বিদেশ ভ্রমনে চমৎকার অভিজ্ঞতা পেতে সবচেয়ে সহায়ক হচ্ছে সঠিক ট্যুর প্ল্যান এবং সেখানকার লোকাল সাপোর্ট। আর এই দুটি ক্ষেত্রেই নিজেদেরকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে দেশের সবচেয়ে ফিমেইল ফ্রেন্ডলি ট্যুর অর্গানাইজার  গ্রিন বেল্ট। ধার করা ট্যুর প্ল্যান নয় বরং নিজস্ব অভিজ্ঞতা আর দক্ষতার সমন্বয়ে আমাদের টিম প্রস্তুত আপনাকে আথিতেয়তার পুরোটুকু দিতে। দেশে অনেকগুলো প্রতিষ্ঠান কাশ্মীর ট্যুর প্যাকেজ অফার করছে।  Green Belt এর বিশেষত্ব হলো- গ্রিন বেল্ট মূলত কাজ করে ফ্যামিলি ট্যুর নিয়ে। নারীদের সুবিধা অসুবিধা বিবেচনায় রেখেই আমরা ট্যুর আয়োজন করে থাকি। কর্পোরেট ট্যুরের ক্ষেত্রেও দেশের শীর্ষস্থানীয় মাল্টিন্যাশনাল হাউজগুলো ভরসা রেখেছে আমাদের উপর।

গন্তব্য: কাশ্মীর ভ্রমণ

❑ যাত্রার তারিখ

ট্যুর ১: ১৬ নভেম্বর ২০২২
ট্যুর ২: ৩০ নভেম্বর ২০২২
ট্যুর ৩: ১৪ ডিসেম্বর ২০২২
ট্যুর ৪: ২০ ডিসেম্বর ২০২২

**উল্লেখ্য কাশ্মীরে বরফ থাকে নভেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত। তাই নভেম্বরের আগে আমরা ট্যুর রাখিনি।

**নূন্যতম ৪ জন হলে যেকোন দিন প্রাইভেট ট্যুর এরেঞ্জ করা যাবে।

❑ ভ্রমণ খরচ
জনপ্রতি  ৪৫০০০ টাকা (শেয়ারিং/ফ্যামিলি রুম)
কাপল প্যাকেজ: ৯৫০০০ টাকা (প্রতি কাপল)

**কলকাতা – শ্রীনগর – কলকাতা জনপ্রতি ২১ হাজার টাকা এয়ার টিকিট এই খরচের অন্তর্ভূক্ত। খুব কাছাকাছি সময়ে বুকিং করলে এয়ার টিকিটের খরচ বেড়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে প্যাকেজ প্রাইসের সাথে বাড়তি ভাড়া যুক্ত হবে।

ভ্রমণের স্থান সমুহ
⦿ শ্রীনগর ⦿ গুলমার্গ ⦿ সোনমার্গ ⦿ পেহেলগ্রাম ⦿ চন্দনওয়ারি ⦿ বেতাব ভ্যালি ⦿ আরু ভ্যালি ⦿ ডাল লেক ⦿ লিডার নদী ⦿ মুঘল গার্ডেন ⦿ হাউজবোটে রাত্রি যাপন

কাশ্মীর ভ্রমণের সম্ভাব্য বর্ণনা

১ম দিন রাতে রওনা দিয়ে ২য় দিন দুপুরের মধ্যে কলকাতা পৌঁছাবো। এদিন রাতে কলকাতা থাকবো। কেউ চাইলে শপিং সেরে নিতে পারেন।

তৃতীয় দিন হোটেল চেক-আউট করে সরাসরি চলে যাবো কলকাতা এয়ারপোর্ট। এরপর ফ্লাইটে শ্রীনগর। রাতে শ্রীনগর অবস্থান। চতুর্থ দিন আমাদের ভ্রমণ গন্তব্যে থাকবে কাশ্মীরের অন্যতম আকর্ষণ গুলমার্গ। সারাদিন গুলমার্গে কাটিয়ে রাতে শ্রীনগর ফিরে আসবো।

পঞ্চম দিন ব্রেকফাস্টের পর চলে যাবো সোনমার্গ এর উদ্দেশ্যে। রাতে শ্রীনগর আবস্থান। ষষ্ঠ দিন আমাদের ভ্রমণ গন্তব্যে থাকবে পেহেলগ্রাম। এদিন পেহেলগ্রামে সাইটসিইংয়ের মধ্যে থাকবে বেতাব ভ্যালি, আরু ভ্যালি, চন্দনওয়ারি ও লিডার নদী। সারাদিন ঘুরে রাতে পেহেলগ্রামেই অবস্থান করবো। সপ্তম দিন পেহেলগ্রাম থেকে শ্রীনগর চলে আসবো। এদিন সারাদিন শ্রীনগর সিটি সাইটসিইং হবে। দর্শনীয় স্থানের মধ্যে থাকবে মুঘল গার্ডেন, পরি মহল, সিকারায় চড়ে বিখ্যাত ডাল লেকে ঘোরা, শঙ্করাচার্য মন্দিরের চূড়া থেকে বার্ডস আই ভিউতে শ্রীনগর দেখা ইত্যাদি।

অষ্টম দিন শ্রীনগর থেকে ফ্লাইটে কলকাতা ফিরে আসবো। রাতে কলকাতা থাকবো। নবম দিন কলকাতা থেকে বেনাপোল হয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা করবো।

কনফার্ম করার ডেডলাইন: যাত্রার তারিখের কমপক্ষে ১২ দিন আগে বুকিং কনফার্ম করতে হবে। (বি.দ্রঃ শুধু মাত্র ভিসা থাকলে ডেড লাইনে কনফার্ম করা যাবে। ভিসা না থাকলে পর্যাপ্ত সময় হাতে রেখে যোগাযোগ করতে হবে।)

❑ আগে থেকে ট্রিপ বুক করলে এয়ার টিকিট নির্দিষ্ট দামে পাওয়া যাবে। কাছাকাছি সময়ে বুকিং করলে এয়ার টিকিটের দাম কয়েক হাজার টাকা বেশিও হতে পারে। সেক্ষেত্রে প্যাকেজ প্রাইসের সাথে অতিরিক্ত টাকা যুক্ত হবে।

❑ কনফার্ম করার জন্য  প্রতিজন ২৫০০০ টাকা করে কনফার্মেশন মানি জমা দিতে হবে।

❑ চাইল্ড পলিসিঃ ০ থেকে ৩ বছরের শিশুদের জন্য ফ্রি এবং ৩+ থেকে ৮ বছরের শিশুদের জন্য আলোচনা সাপেক্ষে চার্জ প্রযোজ্য হবে। এয়ার টিকিটের ক্ষেত্রে এয়ারলাইন্স এর পলিসি অনুসরণ করা হবে।

কাশ্মীর ট্যুর প্যাকেজে যা যা থাকছে

⦿ কলকাতা-শ্রীনগর-কলকাতা ফ্লাইট টিকিট, ২১০০০ টাকা।
⦿ ঢাকা – কলকাতা – ঢাকা এসি বাস
⦿ ভারত পৌঁছানোর পর প্রথমদিন রাতের খাবার থেকে শুরু করে আসার দিন সকালের খাবার পর্যন্ত প্রতিদিন ৩ বেলা খাবার।
⦿ সকল প্রকার হোটেল ট্যাক্স ও পার্কিং চার্জ ।
⦿ ভিসা প্রসেসিং
⦿ পর্যটন স্পট সমূহের এন্ট্রি ফি।

❑ যা থাকছেনা
⦿ ভিসা ফি
⦿ ট্রাভেল ট্যাক্স
⦿ বর্ডার স্পিড মানি
⦿ উপরে উল্লেখ করা হয়নি এমন কোনো খরচ
⦿ ক্যাবল কার কিংবা ঘোড়ায় চড়ার খরচ।

কনফার্ম করার আগে যে ব্যাপার গুলো অবশ্যই বিবেচনা করতে হবে

⦿ ইন্ডিয়ার যেকোনো পোর্ট দিয়ে ভিসা হলেই হবে।

⦿ যদি ভিসা না থাকে তবে ভিসা প্রসেসিং আমরা করে দিবো। এর জন্য বাড়তি সার্ভিস চার্জ দিতে হবেনা।

⦿ শুধুমাত্র ফ্যামিলি ট্যুরিজম নিয়ে কাজ করা গ্রিন বেল্ট বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান।

⦿ গ্রিন বেল্ট এর কোন ট্যুরে কোন হিডেন চার্জ নেই।

⦿ আগে বুকিং কনফার্ম করলে এয়ার টিকিটের ক্ষেত্রে সুবিধা পাওয়া যাবে।

⦿ আমাদের বিভিন্ন ট্যুর শেষে ট্রাভেলারদের ফিডব্যাক জানতে ও ট্যুরের ছবি দেখতে জয়েন করতে পারেন উন্মুক্ত ট্রাভেল আড্ডার গ্রুপ Green Belt The Travelers‘এ।

আমাদের অভিজ্ঞতা : ট্যুরিজম ব্র্যান্ড হিসেবে ২০১৬ সালে গ্রিন বেল্ট যাত্রা শুরু করে। তারপর গত ৬ বছরে গ্রিন বেল্ট সাফল্যের সাথে পরিচালনা করেছে ১০০০ এরও বেশি ট্যুর। দেশের বাইরের ট্যুরগুলোর মধ্যে ভারত ও ভূটানে ট্যুর পরিচালনায় গ্রিন বেল্ট এর দক্ষতা সর্বাধিক। ভারতে কাশ্মীর ট্যুর প্যাকেজ বাদেও দার্জিলিং, মেঘালয় ও সিকিম ট্যুর রয়েছে আমাদের। দেশের ভিতরে রয়েছে সাজেক ভ্যালি, কক্সবাজার, সেইন্টমার্টিন, বান্দরবান, রাঙ্গামাটি, সুন্দরবন, সিলেট সহ অনেকগুলো ডেস্টিনেশন। প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে বাংলাদেশ সচিবালয়ের বিভিন্ন মাননীয় সচিব থেকে শুরু করে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন, টেকনোভিস্তা, ড্রাগ ইন্টারন্যাশনাল, কোকাকোলা (আব্দুল মোনেম লিঃ), রক্সি পেইন্ট, ডাচ বাংলা, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, সিটি ব্যাংক সহ ৮ টি ব্যাংকের বিভিন্ন ব্রাঞ্চ, পঙ্গু হাসপাতালের ডাক্তারগন, ঢাকা মেডিকেল, আসগর আলী মেডিক্যাল সহ বিভিন্ন মেডিকেলের ডাক্তারগণ আমাদের কর্পোরেট ট্যুর সার্ভিস নিয়েছেন। রেগুলার ট্যুর বাদেও নূন্যতম ৪ জন হলে যেকোনোদিন আমরা কাস্টমাইজ ট্যুর এরেঞ্জ করে থাকি। আপনার প্রতিষ্ঠানের কর্পোরেট ট্যুর আয়োজনের জন্য ভরসা করতে পারেন আমাদের দক্ষ টিমের উপর! আপনার স্বপ্নগুলো স্মৃতি হোক!

বুকিং মানি জমা দেওয়ার পদ্ধতি

** সরাসরি অফিসে এসে বুকিং মানি জমা দেয়া যাবে।
(শাহ-আলী প্লাজা, ১৪তম তলা, মিরপুর ১০ নাম্বার গোল চত্ত্বর।)

** বিকাশ ও ডাচ বাংলা ব্যাংকের রকেট করা যাবে।

** ব্যাংক ডিপোজিট করে বুকিং করা যাবে।

**যোগাযোগ :
0186 9649 817
0188 4710 723
0188 6363 232

ভারতে গ্রিন বেল্ট এর অন্যান্য ট্যুর

দার্জিলিং ট্যুর প্যাকেজ
মেঘালয় ট্যুর প্যাকেজ
সিকিম ট্যুর প্যাকেজ
কাশ্মীর ট্যুর প্যাকেজ